Recent Comments

    ব্রেকিং নিউজ

    চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া আজ সকালে বমি করেছেন,কিছুই খেতে পারছেন না:মির্জা ফখরুল || রাজধানী ঢাকার কোনো রুটেই সু-প্রভাত বাস চলবে না: মেয়র আতিকুল ইসলাম || আবরার আহাম্মেদকে চাপা দেয়া বাসটির রেজিস্ট্রেশন বাতিল করেছে বিআরটিএ || নিউজিল্যান্ডের মুসল্লিদের ওপর সন্ত্রাসী হামলার পর প্রথম সংসদীয় অধিবেশন শুরু করা হয়েছে পবিত্র কোরআন তিলাওয়াতের মাধ্যমে। || দক্ষিণ আফ্রিকায় জাকের হোসেন নামের এক বাংলাদেশিকে শ্বাসরোধ করে হত্যা || কারাবন্দি বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির আবেদন জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দিয়েছেন সাবেক ছাএ নেতা সামসুল আলম || বিএনপি থেকে পদত্যাগ করে চেয়ারম্যান পদে ফিরোজ হায়দার || সিমেন্টের বদলে বালি আর রডের বদলে বাঁশ দিবেন না: গ্র্যাজুয়েটদের উদ্দেশে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ || তাঁতী দলের উদ্যোগে আব্দুল আলী মৃধার বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনায় দোয়া মাহফিল ও স্মৃতিচারণ অনুষ্ঠিত হবে || অব্যাহতি চেয়ে আবেদন করা হয়েছে কিনা জানতে চেয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ||

    ঝালকাঠিতে ৭ই মার্চের ভাষনের মোড়কে উপজেলায় নির্বাচনী প্রচারনা!

    March 14, 2019

    আচারনবিধি লংঘন করে এমপির ৫ দিনের সফরে উদ্বেগ্ন স্বতন্ত্র প্রার্থীরা

    আজমীর হোসেন তালুকদার, ঝালকাঠি: ঝালকাঠি সদরের উপজেলা নির্বাচনী দামামার মধ্যেই নির্বচান কমিশন ঘোষিত আচরন বিধি উপেক্ষা করে শিল্পমন্ত্রনালয় সংক্রান্ত সংসদীয় কমিটির সভাপতি ঝালকাঠি-২ আসনের সাংসদ আমির হোসেন আমুর টানা ৫দিনের সফরসূচী নিয়ে নানা প্রশ্নসহ অবাধ-নিরপেক্ষ নির্বাচনের পরিবেশ ব্যহত হওয়ার আশংকা সৃষ্টি হয়েছে। ৭ই মার্চের ভাষনের উপর আলোচনা সভার মোড়কে সদর পৌরসভাসহ ১০ ইউনিয়নে স্থানীয় আ’লীগের ব্যানারে এ কর্মসূচী পালনে চলমান উপজেলা নির্বাচনের স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী ও তাদের কর্মী-সমর্থকরা আতংকিত হয়ে পরেছে। মঙ্গলবার থেকে শনিবার পর্যন্ত পৌর-ইউনিয়নের মেয়র-চেয়ারমানগন দলীয় প্রার্র্থীর পক্ষে এমপিকে ঢাল হিসাবে ব্যবহার করে সাধারন ভোটারসহ জেলা-পুলিশ প্রশাসনের উপর প্রভাব বিস্তার ও প্রতিদ্বন্দি প্রার্থীসহ তাদের কর্মী-সমর্থকদের উপর প্রতিহিংসা চালিয়ে নিয়ন্ত্রিত নির্বাচনের পায়তারা করবে বলে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী ও তাদের কর্মী-সমর্থকরা অভিযোগ করেছে।
    এ বিষয়ে মঙ্গলবার মো. রেজাউল করিম খান নামে এক স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থক এ সফর সূচী বাতিলের জন্য প্রধান নির্বাচন কমিশনার, জেলা রিটানিং কর্মকর্তা, জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের কাছে লিখিত অভিযোগ প্রদান করে অবিলম্বে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের অনুরোধ জানিয়েছে। এধরনের রাজনৈতিক কৌশল নির্বাচন কমিশন আয়োজিত স্থানীয় সরকার নির্বাচনকে প্রভাবিত করবে বলে আনারস প্রতীকে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী, জেলা আ.লীগের সহসভাপতি, চেয়ারম্যান সৈয়দ রাজ্জাক আলী সেলিম ও মটোরসাইকেল প্রতীক নিয়ে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী সদর উপজেলা আ’লীগ সাধারন সম্পাদক ইঞ্জি:মোস্তাফিজুর রহমান মতপ্রকাশ করেছে। এমন কি গত সোমবার জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে মতবিনিময় সভায় স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীদ্বয় উদ্বেগ প্রকাশ করেন।
    সোমবার বেলা ১১ টায় জেলা প্রশাসক সভাকক্ষে পৃথক দুটি পর্বে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার এসএম ফরিদ উদ্দিন, জেলা নির্বাচন অফিসার মোঃ সোহেল সামাদের সভাপতিত্বে আয়োজিত মতবিনিময় সভায় জেলা প্রশাসক মো. হামিদুল হক, পুলিশ সুপার মোঃ জোবায়েদুর রহমান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোঃ শহিদুল ইসলাম, সদর উপজেলার নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী মোঃ আরিফুর রহমান খান, স্বতন্ত্র প্রার্থী ইঞ্জিনিয়ার মোস্তাফিজুর রহমান, সৈয়দ রাজ্জাক সেলিম, রাজাপুর উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী অধ্যক্ষ মনিরউজ্জামান, মিলন মাহমুদ বাচ্চ ু, কাঠালিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী এমাদুল হক মনির , তরুন সিকদারসহ জেলার ৪ উপজেলার চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী, জেলা আ’লীগ নেতৃবৃন্দ, পুলিশের কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
    এ সময় সৈয়দ রাজ্জাক সেলিম তাঁর বক্তব্যে অভিযোগ করেন , ঝালকাঠি পৌরসভার মেয়র , জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জেলার এক শীর্ষ নেতা নৌকার প্রার্থীর পক্ষে প্রভাব বিস্তার করতে বিভিন্ন কর্মসূচী পালন করছেন। যা নির্বাচনী বিধির সম্পূর্ন পরিপন্থি। তিনি ঝালকাঠিতে আগামী ২৪ তারিখের নির্বাচনে সকলের জন্য সমান সুযোগ তৈরীর জন্য নির্বাচন কমিশন ও প্রশাসনের প্রতি আহবান জানান।
    এ সময় জেলা প্রশাসক মো. হামিদুল হক তাঁর সমাপনি বক্তব্যে বলেন, ভোটাররা নির্বিঘেœ ভোট কেন্দ্রে যাবে ও স্বাচ্ছন্দে ভোট দিতে পারবে। ভোট কেন্দ্রেসহ কেন্দ্রের বাইরে যাতে কোন রকম অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে সেজন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তৎপর থাকবে। নির্বাচনকালীন সময়ে আইন শৃঙ্খলার যাতে কোনরকম অবনতি না ঘটে এজন্য সার্বক্ষণিক ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান অব্যাহত থাকবে। ভ্রাম্যমাণ আদালতের সাথে পুলিশের টিম সহায়তায় থাকবে। কেউ উচ্ছৃঙ্খল আচরণ করলে বা নির্বাচনী আচরণ বিধি লঙ্ঘন করলে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।#

    Print Friendly, PDF & Email