Recent Comments

    ব্রেকিং নিউজ

    কুয়েতে বেতন না পাওয়ায় আহলিয়া কোম্পানির একজন বাংলাদেশি শ্রমিকের ছাদ থেকে লাফিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা || ৬০ জন সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীর মুক্তিযোদ্ধা সনদ বাতিল || রাজপথে লড়াই ও রক্ত দেয়া ছাড়া কারাবন্ধী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করা সম্ভব নয়:শামসুজ্জামান দুদু || আওয়ামী লীগের রন্দ্রে রন্দ্রে বাকশাল ঢুকে আছে :ড. আবদুল মঈন খান || ভিপি দায়িত্বভার নেয়ার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিয়েছেন নুরুল হক নুর || নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আরডের্নকে হত্যার হুমকি || চিকিৎসাধীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরর অবস্থা এখন শঙ্কামুক্ত || বিমানবন্দরে প্রবেশের অভিযোগে ৩৫ রাউন্ড গুলি ও অস্ত্র নিয়ে আওয়ামী লীগের এক নেতাকে আটক || তিন দিনের কর্মসূচি ঐক্যফ্রন্টের, প্রকাশ হবে গণশুনানির রায় || কাতারভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম আলজাজিরা বাংলাদেশে ব্লক কেনো? ||

    নিয়ম ভঙ্গ করে রাস্তায় যানবাহন চলাচল করলে চালক ও মালিক উভয়ের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা:ডিএমপি কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া।

    March 17, 2019

    ডিএমপি কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া আজ রোববার দুপুরে রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেল ক্রসিংয়ে ‘ট্রাফিক শৃঙ্খলা সপ্তাহ’ উদ্বোধন

    pnbd24:-নিয়ম ভঙ্গ করে রাস্তায় যানবাহন চলাচল করলে চালক ও মালিক উভয়ের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া।

    আজ রোববার দুপুরে রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেল ক্রসিংয়ে ‘ট্রাফিক শৃঙ্খলা সপ্তাহ’ উদ্বোধনকালে এ কথা বলেন ডিএমপি কমিশনার।

    এ সময় আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, শুধু চালক-মালিকের দোষে সড়ক দুর্ঘটনা হয় না। পথচারীদের অসচেতনতার কারণেও অনেক দুর্ঘটনা ঘটে জানিয়ে, রাস্তা পারাপারে সাধারণ মানুষকে সচেতন হতে হবে বলে জানান তিনি।

    কমিশনার বলেন, ‘আমরা সকলকে অনুরোধ করব, রাস্তা নিয়ম মেনে পারাপার হোন। ইয়ারফোন কানে লাগিয়ে অনেককে আমরা রাস্তা পার হতে দেখি, জীবনের ঝুঁকি নিয়ে। এটি যেন না করে এজন্য আমরা সবার প্রতি অনুরোধ রাখব। ফিটনেসবিহীন গাড়ি রাস্তায় বের করবেন না। আর চালকদের মাসিক ভিত্তিতে ঠিকাদারি ব্যবস্থায় চালাতে দেবেন না।’

    সড়কের শৃঙ্খলা ফেরাতে পুলিশের প্রচেষ্টা ও আন্তরিকতার কোনো ঘাটতি নেই বলে মন্তব্য করেন ডিএমপি কমিশনার। সবাইকে আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হওয়ার আহ্বান জানিয়ে বলেন, ‘সবাইকে আইন মানতে হবে। ট্রাফিক আইন না মানলে আমরা মামলা ও জরিমানা করছি। তবে মামলা বা জরিমানাই শেষ কথা নয়। সবাইকে সচেতন হতে হবে।’

    আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, ‘ঢাকা মহানগরীর বিভিন্ন রাস্তায় চলাচলকারী যাত্রীবাহী বাসগুলো ছয়টি কোম্পানির মাধ্যমে চলবে। এর পদ্ধতি ও কৌশল কী হবে তা নিয়ে যাচাই-বাছাই চলছে। এটি বাস্তবায়নের ফলে সড়কে প্রতিযোগিতামূলক গাড়ি চালানোর প্রবণতা কমবে এবং দুর্ঘটনা হ্রাস পাবে। এই কার্যক্রমের প্রক্রিয়া এরই মধ্যে শুরু হয়েছে।

    রাস্তায় যত্রতত্র গাড়ি পার্কিং, বৈধ কাগজ ছাড়া গাড়ি নামানো কোনোভাবেই বরদাস্ত করা হবে না জানিয়ে ডিএমপি কমিশনার বলেন, যারা নিয়ম ভঙ্গ করবে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে ডিএমপি। ‘সমাজের দায়িত্বশীল ব্যক্তিবর্গকে অনুরোধ করব, আপনারা আইন মানুন, অন্যকে আইন মানতে উৎসাহিত করুন। সবাইকে ট্রাফিক পুলিশকে সহযোগিতা করতে হবে, ট্রাফিক আইন মানতে হবে।’

    নগরবাসীকে আহ্বান জানিয়ে কমিশনার বলেন, ‘আসুন আমরা সবাই ট্রাফিক আইন মানি, অপরকে আইন মানতে উদ্বুদ্ধ করি। ট্রাফিক আইন প্রয়োগে পুলিশকে সহযোগিতা করুন।’

    এর পর পরই গণপরিবহনের যাত্রীদের মধ্যে ফুল ও ট্রাফিক সচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণ করা হয়।

    ঢাকা মহানগরীর জনসাধারণকে ট্রাফিক আইন মেনে চলতে উদ্বুদ্ধকরণ এবং ট্রাফিক শৃঙ্খলার উন্নতিকল্পে আজ ১৭ মার্চ থেকে ট্রাফিক শৃঙ্খলা সপ্তাহ শুরু করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশের ট্রাফিক বিভাগ। চলবে ২৩ মার্চ পর্যন্ত।

    Print Friendly, PDF & Email