Recent Comments

    ব্রেকিং নিউজ

    চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া আজ সকালে বমি করেছেন,কিছুই খেতে পারছেন না:মির্জা ফখরুল || রাজধানী ঢাকার কোনো রুটেই সু-প্রভাত বাস চলবে না: মেয়র আতিকুল ইসলাম || আবরার আহাম্মেদকে চাপা দেয়া বাসটির রেজিস্ট্রেশন বাতিল করেছে বিআরটিএ || নিউজিল্যান্ডের মুসল্লিদের ওপর সন্ত্রাসী হামলার পর প্রথম সংসদীয় অধিবেশন শুরু করা হয়েছে পবিত্র কোরআন তিলাওয়াতের মাধ্যমে। || দক্ষিণ আফ্রিকায় জাকের হোসেন নামের এক বাংলাদেশিকে শ্বাসরোধ করে হত্যা || কারাবন্দি বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির আবেদন জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দিয়েছেন সাবেক ছাএ নেতা সামসুল আলম || বিএনপি থেকে পদত্যাগ করে চেয়ারম্যান পদে ফিরোজ হায়দার || সিমেন্টের বদলে বালি আর রডের বদলে বাঁশ দিবেন না: গ্র্যাজুয়েটদের উদ্দেশে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ || তাঁতী দলের উদ্যোগে আব্দুল আলী মৃধার বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনায় দোয়া মাহফিল ও স্মৃতিচারণ অনুষ্ঠিত হবে || অব্যাহতি চেয়ে আবেদন করা হয়েছে কিনা জানতে চেয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ||

    বিরামপুর সরকারি কলেজে ২৫ মার্চ গণহত্যা ও মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক আলোচনা সভা

    March 4, 2019

    মোঃ মাহমুদুল হক মানিক-স্বাধীনতা যুদ্ধের ভয়াল কালরাত্রির ২৫ মার্চ গণহত্যা ও মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিস্মরণে দিনাজপুরের বিরামপুর সরকারি কলেজের উদ্যোগে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
    এ উপলক্ষে ৩ মার্চ রোববার সকাল ১০ টায় কলেজের বঙ্গবন্ধু সভাকক্ষে অধ্যক্ষ ফরহাদ হোসেনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তৌহিদুর রহমান।
    উপাধ্যক্ষ অদ্বৈত্য কুমারের সঞ্চালনায় এতে প্রধান আলোচক প্রবীণ ব্যক্তিত্ব আব্দুল আজিজ সরকার, এ্যাডভোকেট ও প্রবীণ ব্যক্তিত্ব মওলা বক্স, বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ-বিরামপুর উপজেলা কমান্ডের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার হাবিবুর রহমানসহ কলেজের সহকারী অধ্যাপক আবুল ফজল, প্রভাষিকা জান্নাতুন ফেরদৌস, বিরামপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি আকরাম হোসেন বক্তব্য রাখেন।
    এসময় কলেজের শিক্ষক-শিক্ষিকা, শিক্ষার্থী ও সাংবাদিকগণ উপস্থিত ছিলেন। প্রবীণ বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব আব্দুল আজিজ সরকার স্মৃতিচারণমূলক বক্তব্যে বলেন, ২৫ মার্চ কালরাত্রিতে যে গণহত্যা করা হয়েছিল তা চিরস্মরণীয় করার জন্য আন্তর্জাতিক মহলের কাছে আমরা দাবী জানাই, এটা আন্তর্জাতিকভাবে অচিরেই স্বীকৃতি দিতে হবে।
    তিনি আরো বলেন, ৭১ এ স্বাধীনতা যুদ্ধে এই এলাকায় হাজার হাজার নিরীহ মানুষ মাটির নিচে চিরনিদ্রায় শায়িত আছেন, এটা শহীদের এলাকা বলা যেতে পারে।
    ৩০ লক্ষ শহীদের রক্তের বিনিময়ে কষ্টার্জিত এই দেশে যেভাবে উন্নয়ন হতে চলেছে, অচিরেই বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলাদেশ আমরা তৈরি করতে পারবো।

    Print Friendly, PDF & Email