Recent Comments

    ব্রেকিং নিউজ

    চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া আজ সকালে বমি করেছেন,কিছুই খেতে পারছেন না:মির্জা ফখরুল || রাজধানী ঢাকার কোনো রুটেই সু-প্রভাত বাস চলবে না: মেয়র আতিকুল ইসলাম || আবরার আহাম্মেদকে চাপা দেয়া বাসটির রেজিস্ট্রেশন বাতিল করেছে বিআরটিএ || নিউজিল্যান্ডের মুসল্লিদের ওপর সন্ত্রাসী হামলার পর প্রথম সংসদীয় অধিবেশন শুরু করা হয়েছে পবিত্র কোরআন তিলাওয়াতের মাধ্যমে। || দক্ষিণ আফ্রিকায় জাকের হোসেন নামের এক বাংলাদেশিকে শ্বাসরোধ করে হত্যা || কারাবন্দি বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির আবেদন জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দিয়েছেন সাবেক ছাএ নেতা সামসুল আলম || বিএনপি থেকে পদত্যাগ করে চেয়ারম্যান পদে ফিরোজ হায়দার || সিমেন্টের বদলে বালি আর রডের বদলে বাঁশ দিবেন না: গ্র্যাজুয়েটদের উদ্দেশে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ || তাঁতী দলের উদ্যোগে আব্দুল আলী মৃধার বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনায় দোয়া মাহফিল ও স্মৃতিচারণ অনুষ্ঠিত হবে || অব্যাহতি চেয়ে আবেদন করা হয়েছে কিনা জানতে চেয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ||

    লাকসামের নিঃস্বন্তান আসমতের নেছা ১১৫ বছরেও পায়নি কোন ভাতা

    February 28, 2019

    আর কত বয়স হলে বৃদ্ধা পাবে বয়স্ক ভাতা

    সেলিম চৌধুরী হীরা
    কুমিল্লার লাকসাম উপজেলা ১নং বাকই ইউনিয়ন কৌটইশা গ্রামে আসমতের নেছা বয়স তার ১১৫। তার ভাগ্যে এখনো জোটেনি সরকারী বয়স্ক ভাতাসহ নানাহ সুযোগ-সুবিধা। বয়সের ভারে শরীর নিয়ে পড়েছে। চোখে ঝাপড়া দেখে, পরনে নোংরা বস্ত্র, হাতে লাঠি সাথে ভিক্ষার ঝুলি। লাঠির উপর ভর করে চলতে হয় তাকে। দু’মুঠো ভাতের জন্য শেষ বয়সেও তার দুঃখের শেষ নেই। তারপরেও অসুস্থ শরীর নিয়ে চলে এই বাড়ী ও বাড়ী ভিক্ষার খোজে। ভিক্ষার ঝুলিতে যা সংগ্রহ হয় তা নিযে খুড়িয়ে খুড়িয়ে চলে তার জীবন।
    সরকার বয়োজ্যোষ্ঠ, দুস্থ, স্বল্প উৎপার্জনক্ষম, অক্ষম বয়স্ক গোষ্ঠির সামাজিক নিরাপত্তা বিধান এবং পরিবার ও সমাজের মর্যাদা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ১৯৯৭/৮৯ অর্থ বছরে বয়স্ক ভাতাসহ অন্যান্য ভাতার কর্মসূচি চালু করে। তার মধ্যে পরেনি আসমতের নেছার তালিকা। বিচিত্র এ দেশ, আরো বিচিত্র এদেশের মানুষগুলো এবং তারচেয়ে শতগুন বেশি বিচিত্র এ অঞ্চলের সামাজিক পরিবেশ।
    সরজমিনে গিয়ে জানা যায়, পাশের গ্রাম কোয়ারের আমিন উল্যাহর সাথে পারিবারিক ভাবে বিয়ে হয় আসমতের নেছার। ছেলে সন্তান জন্ম নেয়নি তার ঘরে। এ নিঃশ্বন্তান আসমতের নেছা প্রায় ৫০ বছর আগে স্বামী পরিত্যাক্তা হয়ে বাপের বাড়ী কৌটইশা পশ্চিম পাড়া গ্রামে ভাইয়ের কাছে আশ্রয় নেয়। অস্বচ্ছল ভাইয়ের পরিবারেও সুখ খুজে পায়নি এই বৃদ্ধা। বর্তমানে ভিক্ষে করে ও দুই ভাইপো আমির হোসেন এবং জয়নাল আবেদীনের সাহায্য সহযোগীতায় চলে তার জীবন।
    অনেকই তাকে নিয়ে হাসি তামাশা করে বলে আমাদেরকে দেখে তার কাছে অন্যান্য হাসি তামাশাকর লোক বলেই মনে হয়েছিল। এই হাস্যে উজ্জ্বল ১১৫ বছরের বৃদ্ধা আমাদেরকে বলেন, আপনারাই বলুন কোন ব্যক্তিকে ধরলে এবং কার কাছে গেলে সরকারি বয়স্ক ভাতাসহ অন্যান্য সাহার্য্য পাওয়া যাবে!
    উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা উপন্যাস চন্দ্র দাসের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, এমন অসহায় অবস্থায় থাকা আসমতের নেছার কথাটি কেউ আমাকে জানাইনি। বিষয়টি আমি জানতে পারলে ওই বৃদ্ধার এমন অবস্থা হতো না। না জানার ব্যাপারটা আমি খতিয়ে দেখছি, তবে এটা যখন সামনে এসেছে অতিদ্রæত ওই বৃদ্ধাকে সরকারী ভাতার আওতায় আনা হবে। হয়তো আগামী ১ সপ্তাহের মধ্যে আপনারা জানতে পারবেন।

    Print Friendly, PDF & Email
    • 212
      Shares