Recent Comments

    ব্রেকিং নিউজ

    কোনো কেন্দ্রে ৯৯ শতাংশ ভোট পড়ার বিষয়টি আমি বাস্তবসম্মত বলে মনে করি না:সিইসি কেএম নূরুল হুদা || শপথ গ্রহণ নিয়ে দোটানায় নির্বাচিত বিএনপি দলীয় প্রার্থীরা || একটি অভিনব প্রতিবাদ || খালেদা জিয়ার আপিলের গ্রহণযোগ্যতার ওপর শুনানি ৩০ এপ্রিল || আড্ডা দিতে এসে ঢাবিতে যৌন হয়রানির শিকার বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের তিন শিক্ষার্থী, অভিযোগকারীরাই থানায় || ২০১৮ সালে অনুষ্ঠিত জাতীয় সংসদ নির্বাচন ছিল অশুভ আঁতাতের ফসল:সুজন সম্পাদক ড. বদিউল আলম মজুমদার ||  মিয়ানমারের উত্তরাঞ্চলে জেড খনিতে ভূমিধসে অন্তত ৫০ জনের প্রাণহানি || সরকারে প্রথম ১০০ দিন ছিল উদ্যমহীন, উৎসাহহীন, উচ্ছ্বাসহীন, উদ্যোগহীন: ড. দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য। || শেখ সেলিমের নাতি জায়ান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনারও বেশ প্রিয় ছিল || দরকষাকষির দৃষ্টান্ত কার আছে সেটি আওয়ামী নেতারা নিজেরাই জানেন,না জানলে আপনাদের নেত্রীকে জিজ্ঞেস করুন: রুহুল কবির রিজভী ||

    হত্যার পর লাশ গাছে ঝুলিয়ে আত্মহত্যা বলে চালিয়ে দেওয়ার চেষ্টা শৈলকুপার গাবলা গ্রামে যৌতুকের লোভে স্ত্রীকে হত্যা, শ্বাশুড়ি গ্রেফতার

    February 9, 2019

    জাহিদুর রহমান তারিক,ঝিনাইদহঃ
    ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার গাবলা গ্রামে যৌতুকের লোভে সাথি খাতুন লিপা (২৩) নামে এক গৃহবধুকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। হত্যার পর লাশ গাছে ঝুলিয়ে আত্মহত্যা বলে চালিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করে সাথির স্বামী বরকত মন্ডল উজ্জল। এ ঘটনায় শৈলকুপা থানায় মঙ্গলবার রাতে ৪ জনকে আসামী করে একটি হত্যা মামলা রেকর্ড হয়েছে। পুলিশ অভিযোন চালিয়ে বৃহস্পতিবার এজাহার নামীয় আসামী হালিমা খাতুনকে গ্রেফতার করেছে। মামলার বাদী ও নিহতর মা ঝিনাইদহ সদর উপজেলার তালতলা হরিপুর গ্রামের সিদ্দিক বিশ্বাসের স্ত্রী জায়েদা খাতুন এজাহারে উল্লেখ করেন, ৫ বছর আগে শৈলকুপা উপজেলার গাবলা গ্রামের মুনছুর মন্ডলের ছেলে বরকত মন্ডল উজ্জলের সাথে তার মেয়ের বিয়ে হয়। বিয়ের পর মেয়েকে প্রায় সাড়ে তিন লাখ টাকার সংসারীক মালামাল দেওয়া হয়। সংসারিক জিনিসপত্র দেওয়ার পরও জামাই উজ্জল, তার মা হালিমা খাতুন, ভগ্নিপতি আরিফ ও বোন পলি খাতুন যৌতুকে জন্য সাথিকে বকাঝকা এমন কি মারপিট করতো। গত সোমবার আসামীরা ৫০ হাজার টাকা যৌতুকের জন্য সাথি খাতুনকে বেদম মারপিট করে। বিকালে সাথি তার ব্যবহৃত মোবাইল থেকে এ খবর জানায়। এরপর থেকে সাথির ফোন বন্ধ হয়ে যায়। রাতেই আসামীরা সাথীকে হত্যার পর তার লাশ বাড়ির পাশে একটি কাঠাল গাছে ঝুলিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে প্রচার করে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে সুরাথাল রিপোর্ট তৈরী করার সময় সাথির শরীরে অসংখ্য নির্যাতনের দাগ দেখতে পায়। এরপর থেকে আসামীরা বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যায়। বিষয়টি নিয়ে বৃহস্পতিবার বিকালে শৈলকুপা থানার এসআই ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আব্দুল মতিন জানান, সাথিকে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিক ভাবে মনে করা হচ্ছে। লাশের শরীরে অসংখ্য মারের ছাপ বা দাগ ছিল। তিনি বলেন, এজাহার নামীয় একজন আসামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকীদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

    Print Friendly, PDF & Email