Recent Comments

    ব্রেকিং নিউজ

    রাজনেতিক হস্তক্ষেপ হলে ২০১৮’র বিশ্বকাপে নিষিদ্ধ করা হবে স্পেনকে:ফিফা || লাখো মানুষের শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় সিক্ত হতে পুরোপুরি প্রস্তুত জাতীয় স্মৃতিসৌধ || রাজধানীসহ সারা দেশে বিএনপির প্রতিবাদ কর্মসূচি ১৮ ডিসেম্বর || আগামী বিজয় দিবস সরকারিভাবে বিএনপিই পালন করবে :বিজয় দিবসের শুভেচ্ছা বাণীতে আহম্মেদ আলী মুকিব || ১৬ ডিসেম্বর আমদের গর্বিত এবং মহিমান্বিত বিজয় দিবস: বিএনপি চেয়ারপার্সন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া || ১৯৭১ সালের এদিনে আমরা প্রিয় মাতৃভূমিকে শত্রুমুক্ত করতে সক্ষম হই:বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম || চশমা হিলের পারিবারিক কবরস্থানে বাবার কবরের পাশেই শায়িত হলেন সাবেক মেয়র এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী || বুদ্ধিজীবী হত্যাকান্ডের সঙ্গে জড়িত অনেকের বিচার হয়েছে, অনেকে পালিয়ে আছে: ওবায়দুল কাদের || রাজধানীর মিরপুর বু‌দ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে ফুল দিয়ে জা‌তির শ্রেষ্ঠ সন্তানের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছেন বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া।  || শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট আবদুল হামিদ ||

    রিন নদ-নদীতে চলছে ইলিশ আহরণ

    October 7, 2017

    পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি ঃ-
    পাইকগাছায় নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে অভ্যন্তরিন নদ-নদীতে চলছে ইলিশ আহরণ। প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে শিবসা, ভদ্রা সহ কয়েকটি নদীতে প্রতিদিন ইলিশ ধরা অব্যাহত রেখেছে আহরণকারীরা। ফলে একদিকে বাস্তবায়ন হচ্ছে না সরকারের নিষেধাজ্ঞা, অপরদিকে ইলিশ উৎপাদন ও সংরক্ষণ মারাত্মকভাবে ব্যাহত হতে পারে বলে আশংকা করা হচ্ছে।
    প্রসঙ্গত, ইলিশ সম্পদ সংরক্ষণে মৎস্য প্রাণী সম্পদ মন্ত্রাণালয় এ বছর ইলিশের প্রধান প্রজনন মৌসুমে ১ অক্টোবর হতে ২২ অক্টোবর পর্যন্ত ২২ দিন সময়কালে সারাদেশে ইলিশ মাছ আহরণ, পরিবহন, মজুদ, বাজারজাতকরণ ও বিক্রয় নিষিদ্ধ করে। মন্ত্রাণালয়ের এ নিষেধাজ্ঞা বাস্তবায়নে স্থানীয় মৎস্য অধিদপ্তর ইতোমধ্যে প্যানা, পোষ্টারিং ও মাইকিং করে বিষয়টি জনসাধারণকে অবহিত করেন। এদিকে সরকারের এ নির্দেশনাকে উপেক্ষা করে এলাকার ইলিশ আহরণকারীরা বিভিন্ন নদীতে ইলিশ ধরা অব্যাহত রেখেছে। বিশেষ করে সুন্দরবন সংলগ্ন শিবসা, লতা ও দেলুটির ভদ্রা নদী সহ কয়েকটি নদীতে ইলিশ মাছ ধরা অব্যাহত রয়েছে। আহরণকারীরা প্রশাসনের চোখকে ফাঁকি দিয়ে অভ্যন্তরিন এ নদীতে প্রতিদিন জোয়ারের সময় ফাঁস জাল দিয়ে ইলিশ ধরছে। শুক্রবার দুপুরে লতা ও দেলুটি এলাকার নদী গুলোতে একাধিক ব্যক্তিকে ইলিশ আহরণ করতে দেখা যায় বলে প্রত্যদর্শী অনেকেই জানিয়েছেন। এ ব্যাপারে উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা পবিত্র কুমার দাস জানান, নির্দিষ্ট এ সময়ের মধ্যে কেউ এ আইন অমান্য করে ইলিশ আহরণ ও বিক্রয় করলে আইনে ১ বছর থেকে সর্বোচ্চ ২ বছরের সশ্রম কারাদন্ড, অথবা ৫ হাজার টাকা পর্যন্ত জরিমানা এবং উভয়দন্ডে দন্ডিত করার বিধান রয়েছে। বিষয়টি ব্যাপক প্রচারণার মাধ্যমে জনসাধারণকে অবহিত করা হয়েছে। এমনকি ভ্রাম্যমান আদালত, পরিচালনাও অব্যাহত রয়েছে। তারপরও যদি কেউ সরকারের এ নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে ইলিশ আহরণ, মজুদ অথবা বিক্রয় করে তাহলে তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে স্থানীয় মৎস্য অধিদপ্তরের এ কর্মকর্তা জানিয়েছেন।

     

    Print Friendly, PDF & Email