Recent Comments

    ব্রেকিং নিউজ

    বিমানবন্দর সড়কের বাতি জ্বলেনি:নেতাকর্মীরা মোবাইল ফোনের আলো জ্বালিয়ে খালেদা জিয়াকে স্বাগত জানান || রোহিঙ্গা সঙ্কটের দীর্ঘমেয়াদি সমাধানে কিছুটা সময় লাগবে:ইইউ ডেলিগেশন প্রধান রাষ্ট্রদূত রেনসিয়া তিরিঙ্ক || সিইসি’র ব্যাখ্যায় আওয়ামী লীগ সন্তুষ্ট:নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে সংলাপ শেষে ওবায়দুল কাদের || নেতাকর্মীদের বিপুল সংবর্ধনায় সিক্ত হয়ে বাসায় ফিরেছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া || আকস্মিকভাবে শিরোনামে প্রধান নির্বাচন কমিশনার কেএম নূরুল হুদা || ‘চিকিৎসার পর সুস্থ হয়ে ‘প্রধান বিচারপতি ফিরে এসেই কাজে যোগ দিতে পারবেন’:দিল্লিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার সৈয়দ মোয়াজ্জেম আলী || শেখ হাসিনাকে নির্বাচনকালীন সরকারের প্রধানের প্রস্তাবনা নিয়ে নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে আজ সংলাপে বসছে আওয়ামী লীগ || দুই মাসের বেশি সময় লন্ডন অবস্থানের পর আজ দেশে ফিরছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া || খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা থাকলেই তাকে গ্রেপ্তার করা হবে এটা ঠিক নয়: আইজিপি একেএম শহীদুল হক || ডাকসুর বর্তমান অবস্থা সম্পর্কে খোঁজ নিয়েছেন প্রেসিডেন্ট মো. আবদুল হামিদ ||

    খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারির ঘটনায় মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এর নিন্দা ও প্রতিবাদ

    October 9, 2017

    pnbd24:-আজ একটি মিথ্যা মামলায় বিএনপি চেয়ারপার্সন ও তিনবারের সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারির ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

    আজ এক বিবৃতিতে বিএনপি মহাসচিব বলেন, “মহাজোট সরকার কোন সমালোচনা, বিরোধীতা, প্রতিবাদ সহ্য করতে পারে না। সে কারনে তারা দেশে কোন বিরোধী দল রাখতে চায় না। দেশের ব্যাপক জনপ্রিয় নেত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে প্রধান প্রতিপক্ষ মনে করে বলেই তাঁর বিরুদ্ধে একের পর এক হয়রানীমূলক মামলা দিয়ে বিপর্যস্ত করার ব্যর্থ চেষ্টায় লিপ্ত সরকার। এজন্যই সরকার চরম রাজনৈতিক প্রতিহিংসা চরিতার্থ করতে আদালতকে ব্যবহার করে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলায় গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি করিয়েছে। বর্তমান আওয়ামী সরকার দীর্ঘদিন ক্ষমতায় থাকার জন্যই ভয়াবহ দু:শাসন চালিয়ে বিএনপিসহ বিরোধী দলগুলোকে দমন করার নীতি জারি রেখেছে। ভয়ভীতি প্রদর্শন এবং বিরোধী দলগুলোকে উৎখাত করতে পারলেই দেশের মানুষ ভয় পেয়ে যাবে বলে বর্তমান সরকার বিশ্বাস করে। আর সেজন্যই দেশের বৃহত্তম রাজনৈতিক দল বিএনপি-কে কোণঠাসা করার জন্য জাতীয়তাবাদী শক্তির প্রতীক দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে বিপর্যস্ত করতে রাষ্ট্রযন্ত্রকে নগ্নভাবে ব্যবহার করছে সরকার। বেগম জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারির ঘটনা আক্রোশমূলক ও গভীর ষড়যন্ত্রমূলক। সর্বোচ্চ আদালতের রায় নিয়ে প্রধানমন্ত্রীসহ আওয়ামী নেতা ও মন্ত্রীদের ধৃষ্টতাপূর্ণ বক্তব্য এবং ইদানিং প্রধান বিচারপতিকে নিয়ে মঞ্চায়িত নাটকের নির্লজ্জ ও নজীরবিহীন ঘটনা গোটা জাতিকে বাকরুদ্ধ ও হতবাক করে দিয়েছে। আর এভাবে একের পর এক রাষ্ট্রের গণতান্ত্রিক প্রথা-প্রতিষ্ঠানকে সমূলে উৎপাটিত করার জন্য আওয়ামী সরকার এক আগ্রাসীরুপে আবির্ভূত হয়েছে। রাষ্ট্রের গণতান্ত্রিক স্তম্ভগুলোকে ধ্বংস করে বহুদলীয় গণতন্ত্রের অপরিহার্য শর্ত বিরোধী দলগুলোকে বিনাশ করার ধারাবাহিকতার অংশ হিসেবেই বিএনপি চেয়ারপার্সনের বিরুদ্ধে দায়ের করা অসংখ্য মামলার মধ্যে আজকে একটি মিথ্যা মামলায় গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। আমি দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলায় গ্রেফতারী পরোয়ানা জারির ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি এবং অবিলম্বে তাঁর মিথ্যা মামলা ও গ্রেফতারী পরোয়ানা প্রত্যাহারের জোর দাবি করছি।”

    Print Friendly, PDF & Email