Recent Comments

    ব্রেকিং নিউজ

    ২১তম প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রস্তুতি শুরু করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি) || নির্বাচনকালীন সরকার যেটি হবে সেটি নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের উদ্দেশ্যেই হবে:আমির খসরু মাহমুদ || নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন না দিলে জনগণ রাস্তায় নেমে ভোটাধিকার আদায় করবে || দুপুর বেলাও বিএনপি মনে করছে রাত শেষ হয়নি: ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী || সৌদি আরবে সড়ক দুর্ঘটনায় তিন বাংলাদেশী সহ নিহত হয়েছেন কমপক্ষে ৯ বিদেশী শ্রমিক || সিরিয়ার আফরিনে কুর্দিবিরোধী অভিযান অব্যাহত রেখেছে তুর্কি সামরিক বাহিনী || ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা || ভিডিও >> সাংবাদিক মঞ্জুরুল আহসান বুলবুল’কে ন্যাংটো করে দিলেন ‘উৎসাহী জনতা’ || অপরাধের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে:শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ || খসড়া ভোটার তালিকা অনুযায়ী দেশের মোট ভোটার সংখ্যা ১০ কোটি ৪০ লাখ ৫১ হাজার ||

    গ্রামীন স্বাস্থ্যসেবা :সখিপুরের গ্রামাঞ্চলে স্বাস্থ্যসেবা দিচ্ছে ৩৭টি কমিউনিটি ক্লিনিক

    November 13, 2017

    সখিপুর(টাঙ্গাইল)থেকে মোঃ শরীফুল ইসলাম, সখিপুর উপজেলার ৮টি ইউনিয়নের ৩৭টি কমিউনিটি কিøনিকের মাধ্যমে প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলে অসহায়,হতদরিদ্র লোকদের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করা হচ্ছে। ৩৭টি কমিউনিটি ক্লিনিক একই সময়ে একই সাতে প্রাথমিক স্বাস্থ্য সেবা দিয়ে যাচ্ছে। আর কিছু কমিউনিটি ক্লিনিকের দেয়াল ধ্বসে পড়ায় চিকিৎসা দিতে অসুবিধা হচ্ছে। জানা গেছে, গ্রামীন স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করা জন্য রিভাইটালাইজেশন অব কমিউনিটি হেলথ কেয়ার ইনিশিয়েটিভস ইন বাংলাদেশ (আর সি এইচ সি আইবি) এর আওতায় চার বছর মেয়াদি কমিউনিটি ক্লিনিক প্রকল্প চালু করেছিল সরকার। গ্রামীন স্বাস্থ্যসেবায় কমিউনিটি ক্লিনিক অগ্রনী ভূমিকা রাখায় ৪ বছর মেয়াদের পর সরকার ২০১৬ইং সালের জুন পর্যন্ত ২ বছর বৃদ্ধি করেছে। উপজেলার ৮টি ইউনিয়নের ৩৭টি কমিউনিটি ক্লিনিকে ৩৭জন কমিউনিটি হেলথ কেয়ার প্রোভাইডার(সিএইচসিপি) কাজ করে যাচ্ছে। এদেরকে তিন মাসের মৌলিক প্রশিক্ষন দিয়ে গ্রামীন স্বাস্থ্যসেবার কাজে লাগানো হয়েছে। প্রতিটি কমিউনিটি ক্লিনিকে সরকার ৩০ প্রকারের ওষুধ সরবরাহ করছে। এসব ওষুধ অসহায়,হতদরিদ্র রোগীদের মাঝে বিতরন করা হয়। উপজেলা ৩৭টি কমিউনিটি ক্লিনিকের মধ্যে ঢনঢনিয়া বড়বাইদ পাড়া কমিউনিটি ক্লিনিকে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়-আবাল,বৃদ্ধ,বনিতা রোগী লাইনে দাড়িয়ে আছে। চিকিৎসা নিতে আসা মোসাঃ বিলকিস,রহিমা বেগম বলেন,কমিউনিটি ক্লিনিক তাদের জীবনে আশার আলো,এখন আর সামান্য অসুখে সদর হাসপাতালে যেতে হয় না। বিনামূল্যে এখানেই ওষুধ পাওয়া যায়। প্রতিটি কমিউনিটি ক্লিনিক পরিচালনার জন্য একটি করে কমিউনিটি গ্রুপ গঠন করা হয়েছে বলে জানা গেছে। এই গ্রুপকে সহযোগিতা করার জন্য আছে আরো তিনটি কমিউনিটি সাপোর্ট গ্রুপ। সখিপুর সিএইচসিপি এসোসিয়েশন এর ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বাসারচালা কমিউনিটি ক্লিনিকে কর্মরত সি এইচ সি পি আব্দুল লতিফ মিয়া বলেন, উপজেলার কমিউনিটি ক্লিনিকগুলো প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে বিকাল তিনটা পর্যন্ত থেকে কর্মরত সিএইচসিপি গন নিয়মিত চিকিৎসা সেবা দিয়ে যাচ্ছেন। তিনি জানান, গত অক্টোবর মাসে কমিউনিটি ক্লিনিকের মাধ্যমে ২০হাজার ৮শত ৩১জন সাধারন রোগী,শিশু ১হাজার ৫শত ৯০জন,মাতৃস্বাস্থ্য সেবা দেওয়া হয়েছে ২হাজার১শ৬০জনকে এবং উন্নত চিকিৎসার জন্য ৩শ৫০জনকে রেফার্ড করা হয়েছে।
    সখিপুর উপজেলার ৩৭টি কমিউনিটি ক্লিনিকের মধ্যে কাকড়াজান ইউনিয়নে ইন্দ্রজানি,খুংগারচালা,গড়বাড়ী,বড়বাইদ পাড়া,মহানন্দপুর ৫টি কমিউনিটি ক্লিনিক,বহেড়াতৈল ইউনিয়নে বেতুয়া, কালিয়ান,বগাপ্রতিমা,গোহাইল বাড়ী ৪টি কমিউনিটি ক্লিনিক, গজারিয়া ইউনিয়নে মোচারিয়া পাথার,ইছাদিঘী,কীর্ত্তন খোলা,প্রতিমাবংকী,ছিলিমপুর,দাড়িয়াপুর খোলাঘাটা,কৈয়ামধু ৭টি কমিউনিটি ক্লিনিক,যাদবপুর ইউনিয়নে যাদবপুর বেড়বাড়ী,লাংগুলিয়া,বিসিবাইদ,করটিয়াপাড়া,ঘেচুয়া,আটিয়াপাড়া,ছলংগা,কালিদাস ৮টি কমিউনিটি ক্লিনিক,হাতিবান্ধা ইউনিয়নে চাকদহ,রতনপুর,কামালিয়াচালা,হতেয়া কেরানী পাড়া,বড়চালা ৫টি কমিউনিটি ক্লিনিক,কালিয়া ইউনিয়নে আড়াইপাড়া,বানিয়ারসিট,খালিয়ার বাইদ,কুতুবপুর শাপলার পাড়,চারিবাইদা,বাসারচালা,ঘোনারচালা,কচুয়া ৮টি কমিউনিটি ক্লিনিক রয়েছে। আবার কমিউনিটি ক্লিনিকের দেয়ালে ফাটল থাকায় যেকোন মুহুর্তে ভেঙ্গে পড়ে বড় ধরনের দূর্ঘটনা ঘটার আশংকা রয়েছে। সবচেয়ে খারাপ অবস্থা বংকী,কালিদাস, যাদবপুর বেড়বাড়ী কমিউনিটি ক্লিনিকের। আবার কমিউনিটি ক্লিনিকের ওষুধপত্র কমিউনিটি ক্লিনিকে না দিয়ে সখিপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে বিতরন করায় গ্রামের অসহায়,দরিদ্র রোগীরা ওষুধপত্র থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।

    Print Friendly, PDF & Email