Recent Comments

    ব্রেকিং নিউজ

    ২১তম প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রস্তুতি শুরু করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি) || নির্বাচনকালীন সরকার যেটি হবে সেটি নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের উদ্দেশ্যেই হবে:আমির খসরু মাহমুদ || নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন না দিলে জনগণ রাস্তায় নেমে ভোটাধিকার আদায় করবে || দুপুর বেলাও বিএনপি মনে করছে রাত শেষ হয়নি: ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী || সৌদি আরবে সড়ক দুর্ঘটনায় তিন বাংলাদেশী সহ নিহত হয়েছেন কমপক্ষে ৯ বিদেশী শ্রমিক || সিরিয়ার আফরিনে কুর্দিবিরোধী অভিযান অব্যাহত রেখেছে তুর্কি সামরিক বাহিনী || ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা || ভিডিও >> সাংবাদিক মঞ্জুরুল আহসান বুলবুল’কে ন্যাংটো করে দিলেন ‘উৎসাহী জনতা’ || অপরাধের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে:শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ || খসড়া ভোটার তালিকা অনুযায়ী দেশের মোট ভোটার সংখ্যা ১০ কোটি ৪০ লাখ ৫১ হাজার ||

    আমি সরকারকে অনুরোধ করবো গণতন্ত্রের পথে আসুন:আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী

    November 13, 2017

    সংলাপ-সমঝোতা ছাড়া জোর করে ক্ষমতায় থাকার পরিণতি শুভ হবে না

    pnbd24:-সংলাপ-সমঝোতা ছাড়া জোর করে ক্ষমতায় থাকার পরিণতি শুভ হবে না বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী। তিনি বলেছেন, দেশে একটি নির্বাচিত সংসদ হোক, একটি নির্বাচিত সরকার হোক। তারা জনগণের কাছে জবাবদিহিতার মাধ্যমে দেশ পরিচালিত করবে- এটাই গণতন্ত্রের নিয়ম। আপনি প্রস্তাবনা দেবেন, আলোচনা করবেন, সমঝোতা হবে- এটা হচ্ছে গণতন্ত্রের ভিত্তি। আপনি সবকিছুকে বাইরে রেখে ক্ষমতা দখল করে অব্যাহতভাবে চললে এটার পরিণতি খ্বুই খারাপ হবে। ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি কার্যালয়ে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়ন পরিষদের উদ্যোগে ‘৭ই নভেম্বরের চেতনা এবং বর্তমান রাজনৈতিক প্রেক্ষাপট’ শীর্ষক এই আলোচনায় তিনি এসব কথা বলেন।

    আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, আমি সরকারকে অনুরোধ করবো গণতন্ত্রের পথে আসুন। গণতন্ত্রের পথে এলে আপনারা নিরপেক্ষ নির্বাচনে জয়ী হোন বা পরাজিত হোনÑ রাজনৈতিক অঙ্গনে আপনারা থাকেন সেটা আমরা চাই। কিন্তু জোর করে জনগণকে বাইরে রেখে ক্ষমতায় থাকলে তারপর যদি আপনাদেরকে যেতে হয় তখন কিন্তু রাজনৈতিক অঙ্গনে ফিরে আসতে আপনাদের অনেক সময় লাগবে। সেটা আপনারা নিজেদের অভিজ্ঞতা একবার বুঝে দেখুন- একবার এই কাজ করে আপনাদের বহুবছর রাজনৈতিক অঙ্গন থেকে বিদায় নিতে হয়েছিলো। নিরপেক্ষ নির্বাচনের দাবির প্রসঙ্গ টেনে বিএনপির নীতি নির্ধারক ফোরামের এ সদস্য বলেন, সংসদীয় গণতন্ত্রের মৌলিক বিষয় হচ্ছে নির্বাচনের আগে সংসদ বিলুপ্ত হয়ে যাবে। প্রত্যেকটি দেশে যেখানে সংসদীয় গণতন্ত্র কাজ করছে সেখানে সংসদ বিলুপ্ত লেভেল প্লেয়িং ফিন্ডের মাধ্যমে নির্বাচন হয়। এখানেও লেভেল প্লেয়িং করে নির্বাচন হতে হবে। সংসদ বিলুপ্ত করে নির্বাচন হতে হবে। বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে সেনাবাহিনী মোতায়েনের মাধ্যমে বিগত দিনে যেভাবে সুষ্ঠু নির্বাচনের ব্যবস্থা হয়েছে সেটা ফিরিয়ে আনতে হবে। জনগণের কি প্রত্যাশা তা সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের সমাবেশে প্রকাশ পেয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, দেশে আজ গণতন্ত্র নেই। গণতন্ত্র প্রশ্নবিদ্ধ। আজকে জনগণের একটাই প্রত্যাশা গণতন্ত্র ফিরে পাওয়া। এই প্রত্যাশা ফিরে পাওয়ার নেতৃত্ব দিচ্ছেন খালেদা জিয়া। সংগঠনের সভাপতি রবিউল হোসেন রবির সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় জাগপার সাধারণ সম্পাদক খোন্দকার লুৎফর রহমান, বিএনপির প্রশিক্ষণবিষয়ক সম্পাদক এবিএম মোশাররফ হোসেন, জিয়া নাগরিক ফোরামের মিয়া মো. আনোয়ার ও মোশাররফ হোসেন চৌধুরী বক্তব্য দেন।

    Print Friendly, PDF & Email