Recent Comments

    ব্রেকিং নিউজ

    শিক্ষা প্রশাসনের প্রাণকেন্দ্রে ঘাঁটি গেড়েছিলেন তারা || ২১তম প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রস্তুতি শুরু করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি) || নির্বাচনকালীন সরকার যেটি হবে সেটি নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের উদ্দেশ্যেই হবে:আমির খসরু মাহমুদ || নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন না দিলে জনগণ রাস্তায় নেমে ভোটাধিকার আদায় করবে || দুপুর বেলাও বিএনপি মনে করছে রাত শেষ হয়নি: ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী || সৌদি আরবে সড়ক দুর্ঘটনায় তিন বাংলাদেশী সহ নিহত হয়েছেন কমপক্ষে ৯ বিদেশী শ্রমিক || সিরিয়ার আফরিনে কুর্দিবিরোধী অভিযান অব্যাহত রেখেছে তুর্কি সামরিক বাহিনী || ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা || ভিডিও >> সাংবাদিক মঞ্জুরুল আহসান বুলবুল’কে ন্যাংটো করে দিলেন ‘উৎসাহী জনতা’ || অপরাধের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে:শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ ||

    আদালতের আদেশের কারণে অমুক্তিযোদ্ধাদের বাদ দেয়া যাচ্ছে না:মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রী এ্যাডভোকেট আ ক ম মোজাম্মেল হক

    November 13, 2017

    pnbd24:-মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রী এ্যাডভোকেট আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, জাতির জন্য এটা খুবই লজ্জাজনক ও বেদনাদায়ক হচ্ছে যে এখনো অ-মুক্তিযোদ্ধারা মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকায় রয়ে গেছে। আদালতের আদেশের কারণে এসব অমুক্তিযোদ্ধাদের বাদ দেয়া যাচ্ছে না। আদালতের স্থগিতাদেশের কারণে ৪ বছরের শিশুকেও মুক্তিযোদ্ধার তালিকায় রাখতে হচ্ছে। এখনো অমুক্তিযোদ্ধাদের সরকারি ভাতা দিতে হচ্ছে। তবে আমরা আইনী লড়াই চালিয়ে যাচ্ছি। আর সংসদের মাধ্যমে আদালতের প্রতি আহ্বান জানাবো যেন সেই আদেশ পুনর্বিবেচনা ও প্রত্যাহার করা হয়।

    সোমবার সংসদে প্রশ্নোত্তর পর্বে সরকার ও বিরোধী দলের সংসদ সদস্যদের একাধিক সম্পুরক প্রশ্নের জবাব দিতে গিয়ে মন্ত্রী এভাবেই তাঁর অসহায়ত্ব প্রকাশ করেন। মন্ত্রী জানান, বিএনপি-জামায়াত  জোট ক্ষমতায় এসে ৩৩ হাজার লোকের একটা তালিকা করে। তারা কোন প্রকার নীতি নৈতিকতা ছাড়াই সরকারি কর্মকর্তাদের নিয়ে প্রায় ৩৩ হাজার লোকের একটা তালিকা করে মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে সনদ দিয়েছিল। যাদের অধিকাংশই মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেননি। অনেকেই আবার মুক্তিযুদ্ধের চেতনার বিরোধীতা করেছিল। এটা জাতির জন্য দু:খজনক। কোন রকম তথ্য উপাত্তের ব্যতিরেকেই তারা ইচ্ছামত তালিকা করেছিল। মন্ত্রী বলেন, আদালতে মামলা থাকার কারণে এসব অমুক্তিযোদ্ধাদের এখনো তালিকা থেকে আমরা বাদ দিতে পারিনি। এবিষয়ে আদালতে ১১৬টি মামলা হয়। আমরা চেষ্টা করছি আইনী লড়াইয়ের মাধ্যমে আদালতের আদেশ প্রত্যাহার করে স্ব স্ব উপজেলায় প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকা প্রকাশ করতে। তিনি বলেন, আদালত ব্যাখ্যা দিয়েছে যে, মুক্তিযোদ্ধা তালিকাভূক্ত হওয়া মানুষের মৌলিক অধিকার। কিন্তু আমরা বলছি যারা মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছেন কেবলমাত্র তিনিই মুক্তিযোদ্ধার তালিকায় অন্তর্ভূক্ত হবেন, এটা কেবলমাত্র প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাদের মৌলিক অধিকার, সবার নয়। আদালতের আদেশের কারণে ১৯৭১ সালে যার বয়স ৪ বছর ছিল তাকেও মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছে। এটা সত্যিই দুঃখজনক। এদিকে আগামী তিনদিনের মধ্যে সমস্ত উপজেলার মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকা ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হবে।

    Print Friendly, PDF & Email