Recent Comments

    ব্রেকিং নিউজ

    মালিককে ঘিরে তদন্ত :চারপাশ স্বর্ণে মোড়ানো ৩৫ লাখ টাকার মোবাইল জব্দ || চীন শান্তিপূর্ণ সমাধানে বিশ্বাসী:জাতিসংঘকে দিয়ে রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান হবে না—–চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং য়ি || সারাজীবনতো টাকা এনেছি,পাচার করবো কেন?:শিল্পপতি আবদুল আউয়াল মিন্টু || রোহিঙ্গাদের ওপর মিয়ানমার সেনাবাহিনীর নৃশংসতা যুদ্ধাপরাধের শামিল : বাংলাদেশ সফররত মার্কিন সিনেটররা || ঈদ-ই মিলাদুন্নবি পালিত হবে আগামী ২রা ডিসেম্বর || কানাডার আন্তর্জাতিক উন্নয়ন বিষয়ক মন্ত্রী মারি ক্লদ বিবু মঙ্গলবার ঢাকা আসছেন || কোনো রাজনীতিবিদের নামে সেনা নিবাস করবেন না:বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ || বিমানবন্দরে সাক্ষাৎ হলো ওবায়দুল কাদের ও মির্জা ফখরুলের || বাংলাদেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতির জন্য তারেক রহমানের বিকল্প নেই :সাবেক ভিসি প্রফেসর ড. এমাজউদ্দিন আহমেদ || বিএনপি চেয়ারপার্সন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী  দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার শোকবার্তা ||

    ডিবি পরিচয়ে এক শিক্ষিকাকে লাঞ্চিত করার অভিযোগ

    November 14, 2017

    ঝালকাঠিতে জেএসসি পরীক্ষার্থীকে সতর্ক করার জের

    আজমীর হোসেন তালুকদার, ঝালকাঠি:: ঝালকাঠিতে জেএসসি পরীক্ষার হলে এক শিক্ষার্থীকে ২০ মিনিট খাতা নিয়ে রাখার অযুহাতে ঐ হলের শিক্ষিকাকে ডিবি পরিচয়ে তার বাসায় গিয়ে লাঞ্চিত করার অভিযোগ উঠেছে। গত রবিবার রাত ১০ টায় সদরের বেশাইনখান শহীদ স্মৃতি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা শিখা রায়ের বাসায় এ ঘটনা ঘটে। তার পরিবারের অভিযোগ ঐ শিক্ষার্থীর আত্মীয় ডিবি পুলিশের পরিচয় দিয়ে বাসায় প্রবেশ করে শিক্ষিকাকে থানায় নিয়ে যাবার কথা বলে টানাহেচরা করা হয়।
    এ বিষয়ে শিক্ষিকা শিখা রায় জানায়, গত রবিাবার ঝালকাঠি সরকারি বালক বিদ্যালয় কেন্দ্রে অংক পরীক্ষা চলছিল। পরীক্ষা চলাকালিন সময় সরকারি হরচন্দ্র বালিকা বিদ্যালয়ের পরিক্ষার্থী ফারজানা হলের শৃংখলা ভঙ্গ করে। তাই তাকে নিষেধ করার জের ধরে তার অভিভাবকরা এ ঘটনা ঘটায়। এসময় তাদের মধ্যে একজন ডিবি পুলিশের পরিচয়ে আমাকে থানায় যেতে হবে জানিয়ে হাত ধরে টানাহেচরা করে। এ ঘটনা টের পেয়ে এলাকাবাসি ঘটনাস্থলে এলে দুই ব্যাক্তি সটকে পরে। তারা আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা ও বানোয়াট অভিযোগ করছে।
    এ বিষয়ে পরিক্ষার্থীর মা নারর্গিসের সাথে মোবাইলে কথা বলতে চাইলে তিনি তার ভাই পরিচয়ে বিপ্লব নামের একজনকে ধরিয়ে দেন। তিনি জানান, শিক্ষিকা শিখা রায় আমার ভাগ্নির খাতা নিয়ে ২০ মিনিট অন্য এক পরিক্ষার্থীকে লেখার জন্য দেয়। তাই আমরা এ বিষয়ে হল সুপারসহ কতৃপক্ষের কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছি। কিন্তু তার বাসায় গিয়ে ডিবি পরিচয়ে তাকে লাঞ্চিত করার ঘটনা সম্পূর্ন মিথ্যা। শিক্ষিকা এ বিষয়েজেলা প্রশাসকের কাছে অভিযোগ প্রদান ও প্রয়োজনে জিডি করবে বলে জানান।

    Print Friendly, PDF & Email